প্রযুক্তি বিষয়ক স্টার্টআপের খোঁজে সিডস্টারের বাংলাদেশ পর্ব শুরু

 

ঢাকায় শুরু হতে যাচ্ছে সিডস্টারের বাংলাদেশ পর্ব। এই সামিটে প্রতিশ্রুতিশীল প্রযুক্তি বিষয়ক স্টার্টআপের ধারণা উপস্থানের জন্য আটটি স্টার্টআপকে নির্বাচিত করা হবে। এর মধ্যে বিজয়ী স্টার্টআপ ব্যাংককে অনুষ্ঠিতব্য সিডস্টার এশিয়ার রিজিওনাল সামিট ও সুইজারল্যান্ডে সিডস্টারের গ্লোবাল সামিটে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে। সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের ধারণা উপস্থাপনকারী অনুষ্ঠানটি গ্রামীণফোনের প্রধান কার্যালয়ে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে।


মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর কাওরান বাজারের জনতা টাওয়ারে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে বৈশ্বিক সিড স্টেজ স্টার্টআপ প্রতিযোগিতা সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের বাংলাদেশ পর্ব সিডস্টারস ঢাকার ঘোষণা করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বৈশ্বিক এ সামিটে ৭৫টিরও বেশি দেশ থেকে অংশগ্রহণকারী স্টার্টআপগুলো আন্তর্জাতিক বিনিয়োগকারী ও প্রশিক্ষকদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার সুযোগ পাবেন। পাশাপাশি, বৈশ্বিক এ প্ল্যাটফর্মে নিজেদের ব্যবসায়িক ধারণার উপস্থাপনের মাধ্যমে তাদের সুযোগ থাকছে মূলধন বিনিয়োগ হিসেবে সর্বোচ্চ ১০ লাখ মার্কিন ডলারসহ আরও অনেক পুরস্কার জিতে নেওয়ার।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সিডস্টারস ঢাকা আয়োজনের সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ; পৃষ্ঠপোষকতায় রয়েছে জিপি অ্যাকসেলেরেটর এবং স্পন্সর হিসেবে আছে লংকা-বাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড। এছাড়াও, সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের লোকাল অ্যাম্বাসেডর সোচিয়ানের তানভীর সৌরভের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে।

সিডস্টারস ঢাকাকে স্বাগত জানিয়ে গ্রামীণফোনের হেড অব ট্রান্সফরমেশন কাজী মাহবুব হাসান বলেন, ‘যুগান্তকারী ও প্রেক্ষাপট পরিবর্তন করতে পারে— এমন সব ধারণা নিয়ে বাংলাদেশ থেকে প্রতিভাবান সব উদ্যোগ উঠে আসছে। এ বছর বাংলাদেশের একটি স্টার্টআপ সিডস্টারস গ্লোবালে বিজয়ী হবে বলে আমরা আশাবাদী।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, দুই বছরের কমবয়সী প্রতিষ্ঠানের যারা এখনও ৫০ হাজার মার্কিন ডলারের কম আর্থিক অনুদান জোগাড় করতে পেরেছে এবং যাদের নিজেদের সেবা রয়েছে, সেসব প্রতিষ্ঠানই ‘সিডস্টারস ঢাকা ২০১৭’ এ নিজেদের ধারণা উপস্থাপনের জন্য নির্বাচিত হবে। যেসব স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠাতারা ২৩ সেপ্টেম্বরের আয়োজনে নিজেদের ব্যবসায়িক ধারণার উপস্থাপন করতে চান, তাদের ২০ সেপ্টেম্বরের আগে সিডস্টার ঢাকার ওয়েবসাইটে আবেদন করতে হবে। নির্বাচিত আটটি স্টার্টআপ স্থানীয়ভাবে শীর্ষ পর্যায়ের বিষয় সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের সামনে ইংরেজিতে পাঁচ মিনিটে নিজেদের ব্যবসায়িক ধারণার উপস্থাপনের সুযোগ পাবে।

সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের এশিয়ার রিজিওনাল অ্যাসোসিয়েট আদ্রিয়ানা কলিনি বলেন, ‘সিডস্টারস ওয়ার্ল্ড নতুন প্রজন্মের উদ্যোক্তাদের সঙ্গে বিনিয়োগকারীদের সংযোগ স্থাপনের প্ল্যাটফর্ম। এ বছর এখানকার ইকোসিস্টেমে আমরা যৌথভাবে কী করতে পারি, এটা নিয়ে আমরা রোমাঞ্চিত।’

সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের সচিব সুশাঙ্ক কুমার সাহা। অনুষ্ঠানে সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন ওজি কেলা, লংকা-বাংলা ফাইন্যান্সের হেড অব পার্সোনাল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস খুরশেদ আলম প্রমুখ।

ঢাকায় শুরু হতে যাচ্ছে সিডস্টারের বাংলাদেশ পর্ব। এই সামিটে প্রতিশ্রুতিশীল প্রযুক্তি বিষয়ক স্টার্টআপের ধারণা উপস্থানের জন্য আটটি স্টার্টআপকে নির্বাচিত করা হবে। এর মধ্যে বিজয়ী স্টার্টআপ ব্যাংককে অনুষ্ঠিতব্য সিডস্টার এশিয়ার রিজিওনাল সামিট ও সুইজারল্যান্ডে সিডস্টারের গ্লোবাল সামিটে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে। সিডস্টারস ওয়ার্ল্ডের ধারণা উপস্থাপনকারী অনুষ্ঠানটি গ্রামীণফোনের প্রধান কার্যালয়ে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হবে।