তথ্যপ্রযুক্তি চাকরি মেলায় ভাগ্য খুললো ১৩৩ জনের

 

থ্যপ্রযুক্তি খাতে ক্যারিয়ার গড়তে আগ্রহী তরুণ-তরুণীদের পদচারণায় মুখর চট্টগ্রাম আইটি-আইটিইএস জব ফেয়ার-২০১৭ শেষ হয়েছে। চাকরি মেলা থেকে সরাসরি চাকরি পেয়েছেন ১১৩ জন এবং প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত হয়েছে ৬৯৫ জন। 


বৃহস্পতিবার বন্দরনগরী চট্টগ্রামের জিইসি মিলনায়তনে আয়োজিত এ মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। 

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের আওতায়  লিভারেজিং আইসিটি ফর গ্রোথ, এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড গভর্নেন্স প্রজেক্ট (এলআইসিটি), পিকাবু ও আর্নস্ট অ্যান্ড ইয়াং যৌথভাবে এ মেলার আয়োজন করে। মেলায় চট্টগ্রামের ১৩টি প্রতিষ্ঠানসহ বাংলাদেশের প্রথম সারির ৫০টি আইটি কোম্পানির প্রতিনিধিরা উপস্থিত থেকে চাকরি প্রার্থী তরুণ-তরুণীদের সাক্ষাৎকার নেন এবং প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত করেন। চাকরি মেলায় যোগ দিতে গত ১০ দিনে চট্টগ্রাম বিভাগ থেকে ১০ হাজারের বেশি স্নাতক অনলাইনে নিবন্ধন করেন। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ১১ হাজারের বেশি তরুণ-তরুণী চাকরি মেলায় আসেন।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের লক্ষ্য ২০২১ সালের মধ্যে আইটি-আইটিইএস খাতে রফতানি আয় ৫ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করা এবং ২০ লাখ তথ্যপ্রযুক্তি পেশাজীবী গড়ে তোলা। এ লক্ষ্য পূরণে আমরা ফেব্রুয়ারিতে ঢাকায় চাকরি মেলার আয়োজন করি। সে ধারাবাহিকতায় আজকের এ আয়োজন। আশা করছি আগামীতে এ ধরনের আয়োজন আমরা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নিয়ে যাব।
এলআইসিটি প্রকল্পের পরিচালক মো. রেজাউল করিম সকালে চাকরি মেলার উদ্বোধন করেন। বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ মেলায় চাকরি প্রার্থীরা সরাসরি চাকরিদাতাদের সামনে নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণের সুযোগ পেয়েছেন।

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ক‍র্মসংস্থান এবং আগামীর সম্ভাবনা বিষয়ে চাকরি মেলায় ৪টি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। 

থ্যপ্রযুক্তি খাতে ক্যারিয়ার গড়তে আগ্রহী তরুণ-তরুণীদের পদচারণায় মুখর চট্টগ্রাম আইটি-আইটিইএস জব ফেয়ার-২০১৭ শেষ হয়েছে। চাকরি মেলা থেকে সরাসরি চাকরি পেয়েছেন ১১৩ জন এবং প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত হয়েছে ৬৯৫ জন।