ক্যান্সারে মা স্তন হারানোয় ১৮ বছরের সন্তান বানালো অভিনব অন্তর্বাস!

 


যখন জুলিয়ান রিওস'র বয়স ১৩ বছর তখন তার মা ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। পরবর্তীতে অসুখটি এমন এক পর্যায়ে চলে যায় যে অপারশনের মাধ্যমে তাকে হারাতে হয় স্তন। সেই সময়কার মায়ের মতো কষ্ট যেন আর কারও না হয় সেজন্য ১৮ বছর বয়সে অভিনব অন্তর্বাসের ডিজাইন করেন জুলিয়ান।  


প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট ম্যাশবলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, জুলিয়ানের দাবি অনুযায়ী তার ডিজাইনকৃত অন্তর্বাসটি ব্রেস্ট ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণ সনাক্ত করতে সক্ষম।

তবে এটি এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে, ফলে এটির কার্যক্ষমতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

জুলিয়ান বলেন, যখন আমার বয়স ১৩ বছর আমার মা তখন অসুস্থ হন। তিনি ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন। প্রথম দিকে তার টিউমারটি ছিল খুবই ছোট যা ছয় মাসে অনেক বড় হয়ে যায়। আমার মা তখন মৃত প্রায়।

মায়ের মতো এমন কষ্ট যেন অন্য কাউকে পোহাতে না হয় সেজন্য তিনি ‘ইভা’ নামে নতুন এই অন্তর্বাসটির ডিজাইন করেন।

জানা যায়, অভিনব এই অন্তর্বাসটিতে রয়েছে ট্যাকটাইল সেন্সর। যা ব্রেস্ট ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণ সনাক্ত করতে সক্ষম। এছাড়া এই অন্তর্বাসটি সপ্তাহে এক ঘণ্টার জন্য পরলেই ব্রেস্ট ক্যান্সারের সম্ভাবনা রয়েছে কিনা তা জানা যাবে।

যখন জুলিয়ান রিওস'র বয়স ১৩ বছর তখন তার মা ব্রেস্ট ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। পরবর্তীতে অসুখটি এমন এক পর্যায়ে চলে যায় যে অপারশনের মাধ্যমে তাকে হারাতে হয় স্তন। সেই সময়কার মায়ের মতো কষ্ট যেন আর কা