বাদাম ইলিশ ও নোনা ইলিশ ভাজা

Nut-hilsa-and-nola-halash-fried 


এখন সব জায়গাতেই নাকি ইলিশ অনেক কম দামে পাওয়া যাচ্ছে। আর তাই সবাই এখন খুব ইলিশ মাছ কিনে নানা পদ তৈরি করবে, এটাই স্বাভাবিক। তাই আজ আমারাও আপনাকে জানাচ্ছি ইলিশের দুইটি ভিন্ন পদ। বাদাম ইলিশ ও নোনা ইলিশ ভাজা। তো জেনে নি খুবই সহজ দুইটি ইলিশের রেসেপি।


বাদাম ইলিশ :


উপকরণ ও পরিমান
১. ইলিশ মাছ, মাঝারি সাইজের ৪ টুকরা।
২. বাদাম বাটা, ৫০গ্রাম।
৩. আদা বাটা, ১/২ চা চামচ
৪. পেয়াজ কুচি, ৫ টেবিল চামচ
৫. কাঁচা মরিচ, স্বাদ অনুযায়ী (আস্ত বা ফালি করা)
৬. লবণ, পরিমান মতো
৭. তেল, ২ টেবিল চামচ
৮. পানি, পরিমান মতো (ঝোল যেমন খেতে পছন্দ)

প্রণালি : 


২ টেবিল চামচ লবণ পানিতে মিশিয়ে রান্নার ১৫ মিনিট আগে মাছ ভিজিয়ে রাখতে হবে।
তেল গরম হলে বাদামসহ সব মসলা কষাতে হবে। মসলা কষানো হলে ঝোলের জন্য পরিমান মতো (১.৫ কাপ ) পানি দিয়ে বলক না উঠা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। বলক উঠলে মাছ দিয়ে মাঝারি আঁচে রান্না করতে হবে।

নোনা ইলিশ ভাজা :


উপকরণ ও পরিমান
১. ইলিশ মাছ, মাঝারি সাইজের ৪ টুকরা।
২. আদা বাটা, ১ চা চামচ
৩. লবণ, ১ কাপ

৪. তেল, ৪ টেবিল চামচ

ঐচ্ছিক : মাছ ভাজার সাথে পেয়াজ ভাজা পছন্দ করলে নিচের উপকরণগুলো লাগবে

৫. পেয়াজ কুচি, ৪ টেবিল চামুচ
৬. কাঁচা মরিচ, পরিমাণ মতো (আস্ত বা ফালি করা)

প্রণালি : 


১ কাপ লবণ, ১ কাপ পানি ও ১ চা চামচ আদা বাটা মিশিয়ে মাছ সেই পানিতে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখতে হবে।

৩০ মিনিট পর তেল গরম করে লবণ পানি ঝরানো ইলিশ হালকা আঁচে ভেঁজে ফেলুন। নোনা ইলিশ কড়করে ভাজার চেয়ে নরম ভাঁজা ভালো লাগে। ইলিশের সাথে পেঁয়াজ ও মরিচ ভাঁজা খেতে চাইলে মাছ ভাঁজা শেষে পেঁয়াজ ও মরিচ ভেঁজে ফেলুন।

এখন সব জায়গাতেই নাকি ইলিশ অনেক কম দামে পাওয়া যাচ্ছে। আর তাই সবাই এখন খুব ইলিশ মাছ কিনে নানা পদ তৈরি করবে, এটাই স্বাভাবিক। তাই আজ আমারাও আপনাকে জানাচ্ছি ইলিশের দুইটি ভিন্ন পদ। বাদাম ইলিশ ও নোনা ইলিশ ভাজা। তো জেনে নি খুবই সহজ দুইটি ইলিশের রেসেপি।