মেয়েদের সুরক্ষায় স্মার্ট নেকলেস

Smart-Necklace-Protecting-Girls 

ভারতের পরস বাটরা এবং তার বন্ধুরা মিলে নারীদের পরিধানের জন্য এমন একটি নেকলেস তৈরি করেছেন যা তাদের সুরক্ষার কাজে ব্যবহার করা যাবে।


জানা যায়, ওই স্মার্ট নেকলেসটির পেছনে রয়েছে একটি বাটন। যখন এই নেকলেসটির ব্যবহারকারী কোনো বিপদের সম্মুখীন হবেন তখন নেকলেসটির পেছনে থাকা বাটনটি চাপলেই সয়ংক্রিয়ভাবে নির্দিষ্ট ব্যক্তির কাছে সাহায্যের জন্য বার্তা পৌঁছে যাবে।

২০১২ সালে ভারতের দিল্লির বাসে আলোচিত ধর্ষণের ঘটনার পর নারীদের কীভাবে রক্ষা করা যায় এ নিয়ে চিন্তা করতে থাকেন দিল্লির পরস বাটরা। এ সময়ই এই নেকলেস বানানোর চিন্তা মাথায় আসে তার।

তিনি বলেন,আমরা যখন এ নিয়ে চিন্তা করছিলাম তখন আমরা পড়াশুনার শেষ পর্যায়ে ছিলাম। ২০১৫ সালে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ শেষে এ নিয়ে আমরা কাজ করতে থাকি। এরপর আমরা এই নেকলেস তৈরি করতে সক্ষম হই।

তিনি আরও জানান, তাদের তৈরিকৃত নেকলেসটি রিচার্জেবল ব্যাটারি দিয়ে চলতে সক্ষম। এ ছাড়া এটি নির্দিষ্ট অ্যাপের সঙ্গে সংযুক্ত থাকে। ফলে যখন কেউ বিপদে পড়েন তখন নেকলেসটির পেছনের বাটনটি চাপলেই সাহায্যের জন্য একটি বার্তা আগে থেকে নিবন্ধনকৃত ব্যক্তির কাছে পৌঁছে যায়। এতে খুব দ্রুত বিপদে পড়া একজন নারী বিপদ থেকে রক্ষা পেয়ে থাকেন।

ভারতের পরস বাটরা এবং তার বন্ধুরা মিলে নারীদের পরিধানের জন্য এমন একটি নেকলেস তৈরি করেছেন যা তাদের সুরক্ষার কাজে ব্যবহার করা যাবে।