বাংলাদেশে আসছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

বাংলাদেশে আসছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি 

পৃথিবীর যে কোনও মানুষের ওপর নির্যাতন ও ধর্ষণের প্রতিবাদে বরাবরই সরব হলিউডের খ্যাতনামা অভিনেত্রী-নির্মাতা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। বিশ্বখ্যাত এ তারকা এবার সোচ্ছার হয়েছেন মিয়ানমারে নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের বিষয়ে। নিজ চোখে সেই হতভাগ্য রোহিঙ্গাদের দুরবস্থার চিত্র দেখতে চান তিনি। সশরীরে নির্যাতিতদের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেন। আর এ জন্য তিনি বাংলাদেশ সফরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।


বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) দুপুর দুইটার দিকে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এমনই একটি সংবাদ প্রকাশ করেছে। যেখানে জানানো হয়, মিয়ানমার সীমান্ত পার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের পাশে সহানুভূতির হাত বাড়াতে চান এ অভিনেত্রী।
এর আগে কানাডার ভ্যাঙ্কুভারে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী মিশনের এক সম্মেলনে রোহিঙ্গা ইস্যুতে নিজের দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরেন জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক শুভেচ্ছাদূত জোলি ।

সেখানে তার বক্তব্যে মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর নিন্দা জানান। উল্লেখ করেন, সহিংস ঘটনায় প্রাণভয়ে বাংলাদেশে রোহিঙ্গারা আশ্রয় নিয়েছে, বিশেষ করে নারী-শিশুদের ওপর যৌন নির্যাতনের ঘটনার চরম নিন্দা জানান এ অভিনেত্রী। সেখানেই বাংলাদেশ প্রতিনিধিকে তিনি সফরের বিষয়ে নিজের ইচ্ছের কথা জানান। প্রশংসাও করেন বাংলাদেশের।

এদিকে বিবিসির বরাতে জানা যায়, বিষয়টি নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবেও এগিয়েছেন জোলি। যা নিশ্চিত হয়েছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি বিবৃতিতে। সেখানে জানানো হয়, এর আগে ‘সেক্সুয়াল এক্সপ্লয়টেশন অ্যান্ড অ্যাবিউজ’ বিষয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে একটি বৈঠক করেছেন জোলি।

সে বৈঠকে তিনি বাংলাদেশকে আহ্বান জানান, যেন রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের ওপর যৌন নিগ্রহ ও অত্যাচারের বিরুদ্ধে কথা বলা হয়।

তবে জোলি বা তার ম্যানেজার এখনও বাংলাদেশে আসার সফরসূচির দিনক্ষণ নিশ্চিত করেননি।

পৃথিবীর যে কোনও মানুষের ওপর নির্যাতন ও ধর্ষণের প্রতিবাদে বরাবরই সরব হলিউডের খ্যাতনামা অভিনেত্রী-নির্মাতা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। বিশ্বখ্যাত এ তারকা এবার সোচ্ছার হয়েছেন মিয়ানমারে নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের বিষয়ে। নিজ চোখে সেই হতভাগ্য রোহিঙ্গাদের দুরবস্থার চিত্র দেখতে চান তিনি। সশরীরে নির্যাতিতদের পাশে দাঁড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেন। আর এ জন্য তিনি বাংলাদেশ সফরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।