দীপিকাকে জীবন্ত দগ্ধ করার জন্য পুরস্কার ঘোষণা!

 

সারা ভারত জুড়ে চলচ্ছে বিক্ষোভ। নেপথ্যে ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট নিয়ে নির্মিত সিনেমা ‘পদ্মাবতী’। সঞ্জয় লীলা বানসালির এই সিনেমায় ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করছে রাজস্থানের একাধিক সংগঠন। এরমধ্যে কর্ণি সেনারা তো পরিচালক ও অভিনেত্রীর শিরোচ্ছেদের ঘোষণাও দিয়েছেন। এরই মধ্যে সিনেমার নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোনকে জীবন্ত দগ্ধ করতে পারলে ১ কোটি রুপি দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করল অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভা।


এদিকে এই সংগঠনের পক্ষ থেকে এর আগেও দীপিকা ও পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালিকে হুমকি দেওয়া হয়েছিল। সেবার বলা হয়েছিল, দুজনের শিরশ্ছেদ করতে পারলে ৫ কোটি রুপি পুরস্কার দেওয়া হবে। এবিষয়ে অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভার অধ্যক্ষ ভুবনেশ্বর সিং বলেছেন, নিজের মান মর্যাদা রক্ষা করতে চিতোরগড়ের জহরে আত্মাহুতি দিয়েছিলেন রানী পদ্মাবতী। দীপিকাকে তা উপলব্ধি করানো দরকার। তবেই সে প্রকৃত পদ্মাবতীকে জানতে পারবে।

এসব ছাড়াও দীপিকা ও পরিচালক সঞ্জয় লীলার কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে একাধিক সংগঠন। ‘পদ্মাবতী’ মুক্তি পেলে রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে, কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রককে জানিয়েছে উত্তর প্রদেশ সরকার। এরমধ্যেই আবার নতুন দাবি সামনে এনেছে রাজপুত কর্ণি সেনা। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ছবিটি আগে মেবার রাজপরিবারকে দেখানো হোক। তারা ছবি দেখে আপত্তির কিছু না পেলে, বিক্ষোভ আন্দোলন প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে।

শুধু দীপিকা বা বানসালির উদ্দেশ্যে হুমকি দিয়েই থেমে থাকেননি হরিয়ানার এক বিজেপি নেতা। একইসঙ্গে ছবিতে আলাউদ্দিন খিলজীর ভূমিকায় অভিনয় করা রণবীর সিংয়ের পা ভেঙে দেওয়ারও হুমকি দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি সর্বশক্তি প্রয়োগ করে 'পদ্মাবতী'র মুক্তি আটকানোর জন্য হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদীকেও। ছবি মুক্তি আটকাতে দরকারে দল ছেড়ে দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছেন সূরজ পাল আমু।

বলে রাখা ভালো, ‘পদ্মাবতী’ নিয়ে বিতর্ক থামার কোনও লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না বলিউড তথা ভারতজুড়ে। ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ১ ডিসেম্বর। তবে মুক্তির দিন পিছিয়েছেন নির্মাতারা। গতকাল ভায়াকম ১৮ মোটর পিকচার্স থেকে জানানো হয়েছে যে আপাতত এই সিনেমাটির মুক্তি স্থগিত রাখা হচ্ছে। সেই সঙ্গে এও জানানো হয়েছে, সিনেমাটি মুক্তির ব্যাপারে সবুজ সংকেত পাওয়ার পরেই চূড়ান্ত দিন নির্ধারণ করা হবে।

সারা ভারত জুড়ে চলচ্ছে বিক্ষোভ। নেপথ্যে ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপট নিয়ে নির্মিত সিনেমা ‘পদ্মাবতী’। সঞ্জয় লীলা বানসালির এই সিনেমায় ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করছে রাজস্থানের একাধিক সংগঠন। এরমধ্যে কর্ণি সেনারা তো পরিচালক ও অভিনেত্রীর শিরোচ্ছেদের ঘোষণাও দিয়েছেন। এরই মধ্যে সিনেমার নায়িকা দীপিকা পাড়ুকোনকে জীবন্ত দগ্ধ করতে পারলে ১ কোটি রুপি দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করল অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভা।