বাজি ধরে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যাটারি বানালেন ইলোন মাস্ক

 

কথা রেখেছেন ইলোন মাস্ক। দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ায় ১০০ দিনের কম সময়েও বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যাটারি তৈরি করে দিয়েছে তার গাড়ি নির্মানকারী প্রতিষ্ঠান টেসলা। এর আগে ১০০ দিনের কম সময়ের মধ্যে সবচেয়ে ব্যাটারি তৈরির কথা দিয়েছিলেন ইলোন মাস্ক।


প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য ভার্জের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। প্রতিবেদনে স্থানীয় প্রশাসনের বরাত দিয়ে জানানো হয়, বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যাটারি তৈরির কাজ শেষ হয়েছে এবং এটি পরীক্ষা করাও হয়েছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী এই ব্যাটারিকে বলা হচ্ছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি। এর ক্ষমতা ১০০ মেগাওয়াট। এই ব্যাটারি তৈরিতে খরচ হয়েছে ৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি।

এর আগে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ইলোন মাস্ক অস্ট্রেলীয় সফটওয়্যার উদ্যোক্তা মাইক ক্যানন-ব্রুকেসের সাথে বাজি ধরে এই শত মেগাওয়াট লিথিয়াম ব্যাটারি বানানোর পরিকল্পনা করেন।

সেসময় বাজিতে মাস্ক বলেছিলেন, বায়ুশক্তি থেকে চার্জ হতে সক্ষম এই ব্যাটারি ১০০ দিনে বানিয়ে দেবে তার প্রতিষ্ঠান টেসলা। যদি তা না পারে তবে এর জন্য কোনো অর্থ পরিশোধ করতে হবে না।

মাস্ক আরও জানিয়েছিলেন, টেসলা যদি এই সময়সীমা অতিক্রম করে তাহলে ৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার লোকসান গুনতে হবে প্রতিষ্ঠানটিকে।

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়ার দক্ষিণ অঞ্চলে বিদ্যুৎতের নিরবিচ্ছিন্ন সংযোগের অভাব রয়েছে। আর এই সমস্যা মোকাবেলায় ব্যাটারি তৈরির এই পরিকল্পনা অনুমোদন করে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

কথা রেখেছেন ইলোন মাস্ক। দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ায় ১০০ দিনের কম সময়েও বিশ্বের সবচেয়ে বড় ব্যাটারি তৈরি করে দিয়েছে তার গাড়ি নির্মানকারী প্রতিষ্ঠান টেসলা। এর আগে ১০০ দিনের কম সময়ের মধ্যে সবচেয়ে ব্যাটারি তৈরির কথা দিয়েছিলেন ইলোন মাস্ক।