গলদা ফ্রাই উইথ থানকুনির চাটনি

 

গলদা চিংড়ির তরকারি রান্না করে খাওয়ার থেকে ভুনা, ফ্রাই, গ্রিল্ড ইত্যাদি খেতে বেশি ভালো লাগে। সকল রাধুনীরা তাদের পছন্দ অনুযায়ী নিজস্ব রেসিপি দিয়ে রান্না করে থাকেন। আর যারা রান্না করতে জানেন না তাদের হয়ে যায় সমস্যা। কারণ মসলার মিশ্রণ বা কি কি উপকরণ দিলে বেশি স্বাদ লাগে তা হয়তো অনেকেই জানেন না। কোনো চিন্তা নেই যারা জানেন না তাদের জন্য আজ আমাদের আয়োজন। তাহলে জেনে নিন কীভাবে স্বাদ বাড়াবেন গলদা চিংড়ি ফ্রাইয়ে। আর সাথে রইল ভন্ন স্বাদের থানকুনি পাতার চাটনি।


উপকরণ :


গলদা চিংড়ি ১০-১২টা,
রসুন বাটা আধা চা-চামচ,
আদা বাটা আধা চা-চামচ,
সয়াসস আধা চা-চামচ,
লেবুর রস ১ চা-চামচ,
গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, (ভেজে গুঁড়া করে নিতে হবে)
শুকনা মরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ,
শুকনা মরিচ টালা গুঁড়া আধা চা-চামচ, (ইচ্ছা)
লবণ স্বাদ মতো (সয়াসসে অনেক লবণ থাকে তাই সেই অনুযায়ী লবণ দিবেন)

প্রণালি:

চিংড়ির পরিষ্কার করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে। চিংড়িতে আদা, রসুন, লেবুর রস, শুকনা মরিচ বাটা, সয়াসস, আধা চা-চামচ গোলমরিচ গুঁড়া ও অল্প লবণ দিয়ে মেখে রাখতে হবে ৩০ মিনিট।

কড়াইতে অল্প তেল দিন। গরম হলে চিংড়িগুলো আপনার পছদ মতো পোড়া পোড়া করে বেজে নিন। কড়াই থেকে নামানোর আগে চিংড়িগুলোর উপরে লেবুর রস চিপে দিন। তারপর গোল মরিচের গুঁড়ো ছিটিয়ে দিয়ে নামিয়ে নিন। তারপর থানকুনি অথবা আপনার পছন্দ মতো সস বা চাটনি দিয়ে পরিবেশন করুন।

থানকুনি পাতার চাটনি উপকরণ:


থানকুনি পাতা এক মুঠো
লেবুর রস ১ চা- চামচ,
মরিচ ১-২টা
বিট লবণ ১ চা-চামচ, (ইচ্ছা)
লবণ আধা চা-চামচ,
চিনি ১ টেবিল চামচ। (ইচ্ছা)
প্রণালি: সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে পাটায় বেটে অথবা ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে চাটনি তৈরি করতে হবে।

গলদা চিংড়ির তরকারি রান্না করে খাওয়ার থেকে ভুনা, ফ্রাই, গ্রিল্ড ইত্যাদি খেতে বেশি ভালো লাগে। সকল রাধুনীরা তাদের পছন্দ অনুযায়ী নিজস্ব রেসিপি দিয়ে রান্না করে থাকেন। আর যারা রান্না করতে জানেন না তাদের হয়ে যায় সমস্যা। কারণ মসলার মিশ্রণ বা কি কি উপকরণ দিলে বেশি স্বাদ লাগে তা হয়তো অনেকেই জানেন না। কোনো চিন্তা নেই যারা জানেন না তাদের জন্য আজ আমাদের আয়োজন। তাহলে জেনে নিন কীভাবে স্বাদ বাড়াবেন গলদা চিংড়ি ফ্রাইয়ে। আর সাথে রইল ভন্ন স্বাদের থানকুনি পাতার চাটনি।