প্রত্যাশা বাড়িয়ে দিলো ‘হালদা’ (ভিডিও)

Halda-boosts-expectations-video

উপরের শিরোনামটি আসলে একটি মন্তব্য। ‘হালদা’ ছবির গান দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমনই মন্তব্য করেছেন এক দর্শক।


গত ৩০ অক্টোবর ছবির ‘নোনাজল’ গানটি টাইগার মিডিয়ার ইউটিউব চ্যানেলে অবমুক্ত করা হয়েছে। এরপর থেকে ভিডিওটির নিচে এমন অনেক মন্তব্য এসে জমা পড়ছে।

গানটি গেয়েছেন পিন্টু ঘোষ ও সানজিদা মাহমুদ নন্দিতা। লিখেছেন ও সুর বসিয়েছেন পিন্টুই। গীতিকার হিসেবে সঙ্গে আছেন পরিচালক তৌকীর আহমেদ।

অসাধারণ কণ্ঠ-সুরের এই গানটির কথাগুলো এমন, যার বুকে ঢেউ থাকে তার বুকে ঘর/ জোয়ার ভাটার খেলা করে না তো পর/ জীবন নদীর মতো ঢেউ থামে না/ কেউ তার পাড় পায় কেউ পায় না/ আহা জীবন কত ভালোবাসাবাসি/ নোনাজলে নোনাজলে কত হাসাহাসি...।

গানটির দৃশ্যে একটি দ্বীপ অঞ্চলকে দেখানো হয়েছে। যেখানে বসবাস করছেন মোশাররফ করিম ও তিশা। তাদের দুজনের ভালোবাসার গল্প নিয়ে গানটি।

‘হালদা’ ছবির গল্প লিখেছেন আজাদ বুলবুল। চিত্রনাট্য তৌকীরের। চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক হালদা নদী ও সেখানকার প্রান্তিক মানুষের জীবনবৈচিত্র্যই এর বিষয়বস্তু। দেশের বৃহত্তম প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র এই হালদা নদী। মা মাছেরা এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত অমাবস্যা বা পূর্ণিমার তিথিতে এখানে ডিম ছাড়ে। এই নদী ও নদীর গতি-প্রকৃতি, নদীর ক্ষয় ও নদীতীরবর্তী মানুষের জীবন প্রবাহ ও জটিলতা তুলে ধরা হয়েছে গল্পে।
এদিকে ছবিটি ১ ডিসেম্বর মুক্তি পাচ্ছে। ‘হালদা’ নিয়ে পরিকল্পনা প্রসঙ্গে পরিচালক তৌকীর আহমেদ বলেন, ‘আমার ইচ্ছে, ছবিটি বাণিজ্যিকভাবেও সফল হোক। এ জন্য পরিবেশনার জন্য অভি কথাচিত্র আমাদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। অন্তত ৩০-৪০টি প্রেক্ষাগৃহে যেন এটি মুক্তি পায়- এ ব্যবস্থা করতে চাই।’
ছবিতে জাহিদকে দেখা যাবে খলচরিত্রে। মোশাররফ থাকছেন জেলের ভূমিকায়। আর তাদের সঙ্গে নুসরাত ইমরোজ তিশা অভিনয় করেছেন স্বপ্নবাজ তরুণীর ভূমিকায়। এছাড়া আছেন দিলারা জামান, ফজলুর রহমান বাবু, শাহেদ আলী, রুনা খান প্রমুখ।
‘নোনাজল’ গানটির ভিডিওটি:



.

উপরের শিরোনামটি আসলে একটি মন্তব্য। ‘হালদা’ ছবির গান দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমনই মন্তব্য করেছেন এক দর্শক।