আইফোন টেন উৎপাদনের পেছনে রয়েছে ছাত্রদের অবৈধ ওভারটাইম

 

টেক জায়ান্ট অ্যাপল শুরু থেকেই আইফোন টেন সরবরাহ নিয়ে উৎপাদন বিলম্বে পড়েছিল। আর এ কারণে আইফোন টেন তাড়াতাড়ি গ্রাহকের হাতে পৌঁছে দিতে অ্যাপলের প্রধান সরবরাহকারী ফক্সকন ছাত্রদের দিয়ে অবৈধভাবে অতিরিক্ত কাজ করিয়েছে বলে ফিন্যানশিয়াল টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়।


চীনের একটি কারখানায় আইফোন টেন অ্যাসেম্বলির জন্য প্রতিদিন ১১ ঘন্টা করে কাজ করতে হয়েছে হাই স্কুলের ছাত্রদের। ফিন্যানশিয়াল টাইমসকে ছয়জন হাই স্কুল ছাত্র একথা জানিয়েছে। ছাত্রদের সবার বয়স ১৭ থেকে ১৯ বছরের মধ্যে। আর চীনা শ্রম আইনে ইন্টার্ন ছাত্রদের দিয়ে এমন ওভারটাইম করানো অবৈধ।

শাস্তির ভয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ছাত্র জানিয়েছে, তাদের গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করতে তিনমাসের এই ইন্টার্ন করাটা বাধ্যতামূলক। ওই ছাত্র জানিয়েছে, সে একদিনে ১ হজার ২০০ আইফোন টেন ক্যামেরা অ্যাসেম্বল করেছে। তবে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি স্কুল কর্তৃপক্ষ।

চীনের শ্রম আইন অনুসারে, ইন্টার্ন ছাত্রদের সপ্তাহে ৪০ ঘন্টার বেশি কাজ করা নিষিদ্ধ।

অ্যাপল এবং ফক্সকন ওভারটাইমের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছে, তারা প্রতিকারমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। তবে উভয় প্রতিষ্ঠানই জানিয়েছে, ছাত্ররা স্বেচ্ছায় এই কাজ করেছে। প্রতিবছর প্রতিষ্ঠানটি আগস্ট থেকে ডিসেম্বরে ব্যস্ত সময়ে ছাত্রদের নিয়োগ দিয়ে থাকে বলে দীর্ঘদিন ফক্সকনে কাজ করা এক কর্মী জানান। এ সময়ে একদিনে ১ লাখ থেকে ৩ লাখ কর্মী ২০ হাজার আইফোন উৎপাদন করে থাকে।

টেক জায়ান্ট অ্যাপল শুরু থেকেই আইফোন টেন সরবরাহ নিয়ে উৎপাদন বিলম্বে পড়েছিল। আর এ কারণে আইফোন টেন তাড়াতাড়ি গ্রাহকের হাতে পৌঁছে দিতে অ্যাপলের প্রধান সরবরাহকারী ফক্সকন ছাত্রদের দিয়ে অবৈধভাবে অতিরিক্ত কাজ করিয়েছে বলে ফিন্যানশিয়াল টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়।