হিমহিম ঠাণ্ডায় এক বাটি থাই স্যুপ

হিমহিম ঠাণ্ডায় এক বাটি থাই স্যুপ 

ঠাণ্ডা পড়ে গেছে। সন্ধ্যা বেলাটায় ধোঁয়া ওঠা চা কিংবা ভাঁপা পিঠায় ভীষণ জমে ওঠে। তবে যারা মিষ্টি কিছুর পরিবর্তে ঝাল পছন্দ করেন- তাদের জন্যই এক কাপ ধোঁয়া ওঠা গরম গরম স্যুপ। ঘরেই তৈরি করে নিন থাই স্যুপ।


উপকরণ:


চিকেন স্টক- ৪/৫ কাপ

তেল- ১ টেবিল চামচ

মুরগির মাংস চিকন লম্বাটে করে কাটা- আধ কাপ

খোসা ছাড়ানো চিংড়ি মাছ- আধা কাপ

টেস্টিং সল্ট- ১ চা চামচ

লেবুর রস- ১ চা চামচ,

লেমন গ্রাস/থাই গ্রাস- ৪/৫টি,

চিনি- ১ চা চামচ

লবণ- স্বাদমতো

ডিমের কুসুম- ২টি

চিলি সস- ৩/৪ টেবিল চামচ

টমেটো সস- ২ টেবিল চামচ

সয়াসস- ১ টেবিল চামচ

কাঁচামরিচ ফালি- ৭/৮ টি

কর্নফ্লাওয়ার- ২ টেবিল চামচ

লেবু পাতা- ২/৩টি

প্রণালি:  মুরগির মাংসের হাড় নিয়ে ১০-১২ কাপ পানিতে একটু লবণ দিয়ে সিদ্ধ করতে থাকুন। পানি শুকিয়ে অর্ধেক হলে চিকেন স্টক তৈরি হয়ে যাবে। এরপর ছেঁকে নিয়ে চিকেন স্টক চুলায় বসিয়ে দিন। চিকেন স্টকে মাংস, চিংড়ি মাছ, লেমন/থাই গ্রাস, সয়াসস, চিলি সস, টমেটো সস, লবণ, চিনি ও টেস্টিং সল্ট দিয়ে দিন ও নেড়ে মিশিয়ে নিন ভালো করে। ডিমের কুসুম একটি বাটিতে নিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন এবং স্টকে ডিম দিয়ে ভালো করে নেড়ে দিন যাতে পুরোপুরি মিশে যায়। মাংস ও চিংড়ি সেদ্ধ হওয়া পর্যন্ত অল্প আঁচে স্টক জ্বাল দিতে থাকুন। সেদ্ধ হয়ে গেলে আধা কাপ পানিতে কর্ণ ফ্লাওয়ার গুলিয়ে স্টকে দিয়ে দিন। খুব দ্রুত ও ঘন ঘন নাড়তে নেড়ে কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে নিন। স্যুপ ঘন হয়ে এলে এতে লেবুর রস ও কাঁচা মরিচ ফালি দিয়ে একটু নেড়ে নিন। এবং চাইলে দুয়েকটা লেবু পাতা দিতে পারেন। লবণের স্বাদ বুঝে নিন এবং এরপর চুলা থাকে নামিয়ে নিন। ব্যস, এবার গরম গরম স্পাইসি থাই স্যুপের মজা নিন হালকা এই শীতে।

ঠাণ্ডা পড়ে গেছে। সন্ধ্যা বেলাটায় ধোঁয়া ওঠা চা কিংবা ভাঁপা পিঠায় ভীষণ জমে ওঠে। তবে যারা মিষ্টি কিছুর পরিবর্তে ঝাল পছন্দ করেন- তাদের জন্যই এক কাপ ধোঁয়া ওঠা গরম গরম স্যুপ। ঘরেই তৈরি করে নিন থাই স্যুপ।