প্রেমের ক্ষেত্রে সবার পছন্দ বইপড়ুয়া মানুষ!

 


খুব কম মানুষ আছে বই পড়তে পছন্দ করেন না। সেই সংখ্যাটা হাতের আঙ্গুলে গুণে নেওয়া যাবে হয়তো। যারা বই পড়তে ভালোবাসেন তাদের কাছে বই হলো অমূল্য সম্পদের মতো। বইপড়ুয়ার মাঝে রয়েছে ভিন্নতা। কেউ হয়ত সকালে ঘুম থেক উঠে দুই পাতা বই পড়তে ভালোবাসেন। কিংবা অবসর সময়ে অন্যান্য যেকোন কাজ একপাশে রেখে একটি বই পড়ে ফেলতে চান অনেকে। আবার এমন বইপড়ুয়াও রয়েছে এক মাসের মাঝে ১৫-২০ টি বই পড়ে শেষ করে ফেলেন! 


আপনি যে ধরণের বইপড়ুয়াই হোন না কেন বই পড়ার অভ্যাস যদি আপনার মাঝে থাকে তবে আপনার জন্যে রয়েছে ইতিবাচক কিছু তথ্য! বই পড়ার তালিকা দেখে অথবা পছন্দের বইয়ের তালিকা দেখে কাউকে পছন্দ করেছেন কি কখনো? উত্তর যদি হ্যাঁ হয়ে থাকে তবে দারুণ একটি ব্যাপার জেনে রাখুন। এমন মানুষ শুধু আপনি একাই নন। মজার ব্যাপার হচ্ছে, নিজের বই পড়ার অভ্যাস খুব গুরুত্বপূর্ণভাবে আপনার প্রেম-ভালোবাসার জীবনের ওপরে প্রভাব ফেলে থাকে!

বাইরের দেশের বেশকিছু ডেটিং ওয়েবসাইট তাদের পরিসংখ্যান থেকে বের করেছে, ব্যক্তিগত প্রোফাইলে বই পড়ার অভ্যাসকে শখ হিসেবে দেখালে, সেই প্রফাইলে ব্যক্তির প্রতি মানুষের বিশেষ আগ্রহের সৃষ্টি হয়। একইসাথে বিপরীত লিঙ্গের মানুষের কাছে উক্ত ব্যক্তিকে আকর্ষণীয় মনে হতে থাকে।

এমনকি, আরো কিছু তথ্য থেকে জানা যায় মজার কিছু তথ্য। যে সকল পুরুষ তাদের নিজস্ব প্রফাইলে শখ হিসেবে বই পড়ার কথা উল্লেখ করেন, অন্য পুরুষদের তুলনায় তাদের কাছে ১৯ শতাংশ বেশী বার্তা আসে। নারীদের ক্ষেতে এই সংখ্যাটা অবশ্য কমে যায়। বই পড়ার অভ্যাস রয়েছে যে সকল নারীদের, অন্য নারীদের তুলনায় তারা ৩ শতাংশ বেশী বার্তা পান।

কিছু ব্যাপারে সকলেই একমত পোষণ করেন। আর সেই ব্যাপারটি যখন বই পড়ার ক্ষেত্রে তখন দ্বিমত পোষণ করার কোন অবকাশ একেবারেই থাকে না। বইপড়ুয়া মানুষদের বুদ্ধিমত্তা অন্যান্যদের চাইতে বেশী হয়ে থাকে। আরো দারুণ একটি ব্যাপার সম্পর্কেও অবগত হওয়া যায়। যারা বইপড়ুয়া তাদেরকে কোন এক কারণে সকলে খুব বিশ্বস্ত বলে ধরে নেন। এ কারণে, বইপড়ুয়া কারোর সাথে সম্পর্কে জড়ানোর ক্ষেত্রে অনেকেই আগ্রহী থাকেন।

তবে শুধুমাত্র বই পড়ার অভ্যাসই যথেষ্ট নয়, কোন বই রয়েছে আপনার পছন্দের তালিকায় সেটাও নির্ধারণ করে কতটা সাড়া পাবেন বিপরীত লিঙ্গের কারোর কাছ থেকে। পুরুষদের ক্ষেত্রে- যাদের বই পড়ার তালিকায় দেখা যায় একশন, অ্যাডভেঞ্চার ঘরানার বই পড়ার অভ্যাস রয়েছে তারা বেশী সাড়া পেয়ে থাকেন। এর মধ্যে গেইম অব থ্রোনস, লর্ড অব দ্যা রিংস রয়েছে। অন্যদিনে যে সকল নারীদের পছন্দের বইয়ের তালিকায় দ্যা হাংগার গেমস, দ্যা গার্ম উইথ দ্যা ড্রাগন ট্যাটু, প্রাইড এন্ড প্রিজুডিস, ফিফটি শেডস অব গ্রে, হ্যারি পটার সিরিজ বইয়ের নাম উল্লেখ করা হয়েছে তারা বেশী সাড়া পেয়ে থাকেন!

খুব কম মানুষ আছে বই পড়তে পছন্দ করেন না। সেই সংখ্যাটা হাতের আঙ্গুলে গুণে নেওয়া যাবে হয়তো। যারা বই পড়তে ভালোবাসেন তাদের কাছে বই হলো অমূল্য সম্পদের মতো। বইপড়ুয়ার মাঝে রয়েছে ভিন্নতা। কেউ হয়ত সকালে ঘুম থেক উঠে দুই পাতা বই পড়তে ভালোবাসেন। কিংবা অবসর সময়ে অন্যান্য যেকোন কাজ একপাশে রেখে একটি বই পড়ে ফেলতে চান অনেকে। আবার এমন বইপড়ুয়াও রয়েছে এক মাসের মাঝে ১৫-২০ টি বই পড়ে শেষ করে ফেলেন!