ছিনতাইকারীর ‘হেঁচকা টানে’ মায়ের কোল থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

 

রাজধানীর দয়াগঞ্জে চলন্ত রিকশা থেকে হাতব্যাগ ছিনতাইয়ের সময় মায়ের কোলে থাকা পাঁচ মাসের এক শিশুর পড়ে মৃত্যু হয়েছে।


১৮ ডিসেম্বর সোমবার ভোরে দয়াগঞ্জ ঢালে এ ঘটনা ঘটে।    

নিহত শিশুটির নাম আরাফাত। সে শরীয়তপুরের শাহ আলম ও আকলিমা বেগম দম্পতির ছেলে। সোমবার ভোরে আলম ও আকলিমা তাদের ২ বছরের ছেলে আল-আমিনের চিকিৎসার জন্য শরীয়তপুর থেকে লঞ্চে ঢাকায় আসেন।

আকলিমা বলেন, ‘লঞ্চ থেকে আলম তার অসুস্থ ছেলে আল আমিনকে নিয়ে শ্যামলী শিশু হাসপাতালে যায়। অন্য দিকে আমি আরাফাতকে নিয়ে রিকশাযোগে শনির আখড়ায় বোন মাকসুদার বাসায় যাচ্ছিলাম। আমাদের রিকশা দয়াগঞ্জে পৌঁছালে ২-৩ জন ছিনতাইকারী হঠাৎ ভ্যানিটি বেগে টান দেয়।’ 

এ সময় ছিনতাইকারীদের ‘হেঁচকা টানে’ কোল থেকে আরাফাত পড়ে যায়। তারা আমার ব্যাগ কেড়ে নিয়েছে। আমার কলিজার টুকরাকেও কেড়ে নিয়েছে, বলেন আকলিমা।’ 

পরে মুমূর্ষু অবস্থায় শিশুটিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে (ঢামেক) নিয়ে এলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ঢামেক পুলিশ ক্যাম্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া।

গেন্ডারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, দয়াগঞ্জে শিশুর মৃত্যুর সংবাদ পুলিশ পেয়েছে। ঘটনাটি গেন্ডারিয়া থানার মধ্যে হয়েছে কি-না জানার চেষ্টা করছেন তারা।

রাজধানীর দয়াগঞ্জে চলন্ত রিকশা থেকে হাতব্যাগ ছিনতাইয়ের সময় মায়ের কোলে থাকা পাঁচ মাসের এক শিশুর পড়ে মৃত্যু হয়েছে।