তোমাদের স্বপ্ন পূরণের হাতিয়ার হব: মোস্তাফা জব্বার

তোমাদের স্বপ্ন পূরণের হাতিয়ার হব: মোস্তাফা জব্বার 

সৃজনশীল ও বিজ্ঞান বিষয়ক প্রকল্প বাস্তবায়নের স্বপ্ন যারা দেখেন, তাদের স্বপ্ন পূরণে হাতিয়ার হিসেবে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।


২৩ জানুয়ারি মঙ্গলবার ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে আয়োজিত ‘বিজ্ঞান উদ্ভাবন মেলা ২০১৭-১৮’-এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘তোমাদের চিন্তা-ভাবনাগুলোকে যারা বাস্তবায়িত করতে চাও, তাদের জন্য বাড়তি সুবিধা আছে। প্রধানমন্ত্রী তাদের জন্য টাকা বরাদ্দ করে রেখে দিয়েছেন। আমার কেবলমাত্র খুঁজে বের করা দরকার কে কে সৃজনশীল আছ, কে কে প্রকল্প বাস্তবায়ন বা স্বপ্ন পূরণ করতে চাও; আমি তোমাদের স্বপ্ন পূরণের হাতিয়ার হব।’

‘আমরা যাদেরকে কেবলমাত্র কেরানী বানানোর জন্য শিক্ষা দিতাম, তাদেরকে নলেজ ওয়ার্কার বানাতে হবে। জ্ঞানভিত্তিক সমাজ অথবা নলেজ ওয়ার্কার বৃদ্ধির মূলে রয়েছে সৃজনশীলতা। আর সবসময়ই প্রতিটি ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয় উদ্ভাবন ও সৃজনশীলতাকে’, যোগ করেন তিনি।

একসময় দেশ প্রযুক্তিতে পিছিয়ে ছিল উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশ ছিল কৃষিপ্রধান দেশ। প্রযুক্তিতে একদম পিছিয়ে ছিলাম আমরা। প্রযুক্তি ৩২৪ বছর পর বাংলাদেশ সীমান্তে এসে পৌঁছেছে। একবার হ্যানরি কিসিঞ্জার বাংলাদেশকে তলাহীন ঝুড়ির সঙ্গে তুলনা করেছিলেন। কিন্তু এখন বাংলাদেশ তলাহীন ঝুড়ির দেশ নয়।’

 অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের ট্রাস্টি ড. রেজাউল রহমান, অধ্যাপক জেবা ইসলাম, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. সবুর খান।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ফ্রিডম ফাউন্ডেশনের সিইও সাজ্জাদুল ইসলাম।

সৃজনশীল ও বিজ্ঞান বিষয়ক প্রকল্প বাস্তবায়নের স্বপ্ন যারা দেখেন, তাদের স্বপ্ন পূরণে হাতিয়ার হিসেবে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।