রেসিপি: চালকুমড়ার মোরব্বা

রেসিপি: চালকুমড়ার মোরব্বা 


জর্দা কিংবা কেক সুস্বাদু করার জন্য চালকুমড়ার মোরব্বা ব্যবহার করা হয়। মজাদার এই মোরব্বা খাওয়া যায় এমনিতেও। জেনে নিন কীভাবে ঘরেই বানাবেন চালকুমড়ার মোরব্বা।


উপকরণ


পাকা চালকুমড়া- ১টি (দেড় কেজি ওজনের)
চুন- ২ চা চামচ
চিনি- ৩ কাপ
এলাচ- ২টি 
কেওড়া জল- ১ চা চামচ

প্রস্তুত প্রণালি

চালকুমড়া চাকার মতো বড় টুকরা করে কেটে নিন। এবার প্রতিটি টুকরা থেকে কেটে ৩ থেকে ৪ পিস করে বের করুন। চালকুমড়ার নরম অংশ ও খোসা কেটে বাদ দিয়ে কেবল মাঝের অংশটুকু রাখুন। এবার কাঁটাচামচ দিয়ে ছিদ্র করুন চালকুমড়ার টুকরোগুলো। উপর-নিচ ভালো করে ছিদ্র করতে হবে যেন ভেতরে চিনির সিরা যেতে পারে। ছুরি দিয়ে যেদিকে খোসা ছিল সেদিকটা আলতো করে আঁচড়ে নিন বারকয়েক।

এবার একটা বাটিতে পানি নিয়ে চুন গুলিয়ে নিন। চুনমিশ্রিত পানিতে চালকুমড়ার টুকরা ডুবিয়ে রাখুন। এটি কুমড়ার টুকরোগুলোকে সাদা ও শক্ত রাখতে সাহায্য করবে। কমপক্ষে ৬ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখতে হবে।

চুনের পানিতে ছেঁকে চালকুমড়ার টুকরোগুলোকে পানি বদলে কয়েকবার ধুয়ে নিন।
প্যানে পানি গরম করুন। ফুটে ওঠার আগ মুহূর্তে চালকুমড়ার টুকরা দিয়ে দিন। ৬ থেকে ৭ মিনিট উচ্চ তাপে প্যান রাখুন চুলায়। চুলা থেকে নামিয়ে সঙ্গে সঙ্গে ছেঁকে নিন।

চুলায় প্যান দিয়ে চিনি, কেওরা জল, এলাচ ও ৩ থেকে ৪ টেবিল চামচ পানি দিন। চুলার আঁচ কম রেখে ঘন ঘন নেড়ে চিনি গলিয়ে নিন। চিনির উপরে বুদবুদ উঠলে সেদ্ধ করে রাখা চালকুমড়া দিয়ে নাড়ুন। কুমড়া থেকে পানি বের হয়ে সিরা পাতলা হয়ে গেলে আরও কিছুক্ষণ জ্বাল দিন। ২০ মিনিট পর সিরা শুকিয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে ছড়ানো প্লেটে এমনভাবে রাখুন যেন একটির সঙ্গে আরেকটি লেগে না যায়। ১০ ঘণ্টা এভাবে রেখে দিন। কেটে বা আস্ত টুকরা সংরক্ষণ করুন মুখবন্ধ বয়ামে। 

জর্দা কিংবা কেক সুস্বাদু করার জন্য চালকুমড়ার মোরব্বা ব্যবহার করা হয়। মজাদার এই মোরব্বা খাওয়া যায় এমনিতেও। জেনে নিন কীভাবে ঘরেই বানাবেন চালকুমড়ার মোরব্বা।