ইন্টারনেটের ওপর থেকে ভ্যাট প্রত্যাহারের ইঙ্গিত অর্থমন্ত্রীর

 

ইন্টারনেটের ওপর আরোপিত ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহারের ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেন, ‘আমাদের রাষ্ট্রীয় সম্পদ বেড়েছে, কিন্তু সরকারের সম্পদ বাড়েনি। ফলে অনেক কিছুই করতে পারি না। তবে একটা ইতিবাচক সিদ্ধান্ত দেওয়ার আশা করছি। হতাশ হওয়ার কিছু নেই। আগামী জুন মাসের মধ্যে ইন্টারনেটের ওপর আরোপিত ভ্যাটের বিষয়ে একটা সিদ্ধান্ত উপস্থাপন করতে পারবো।’


বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মলেন কেন্দ্রে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) আয়োজিত সফটওয়্যার মেলা ‘বেসিস সফটএক্সপো ২০১৮’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ডাক ও টেলিযোগাযোগ এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারও অর্থমন্ত্রীর কাছে ইন্টারনেটের ওপর থেকে ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহারের অনুরোধ করেন। পরে অর্থমন্ত্রী তার বক্তব্যে এটা প্রত্যাহারের ইঙ্গিত দেন।

অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ‘গত ২০ বছরে আমরা তথ্যপ্রযুক্তিতে অনেক এগিয়েছি। আরও এগিয়ে যেতে হবে। দেশের সফটওয়্যার রফতানি বাড়ছে। আশা করছি নির্দিষ্ট সময়ের আগে আমরা একশ কোটি ডলার সফটওয়্যার রফতানির লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছতে পারবো।’

সারাদেশে ওয়াইফাই স্পট থাকার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এটা সীমিত থাকলে প্রযুক্তির বিকাশ ধীর গতিতে হবে। গতি বাড়াতে হলে ওয়াইফাই স্পট তৈরি করতে হবে।’ এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।


সফওয়্যার মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘আমরা ২৬ মিলিয়নের দেশ থেকে আটশ মিলিয়ন ডলারের সফটওয়্যার রফতানিকারক দেশ হতে পেরেছি। চলতি বছরের শেষ নাগাদ তা একশ কোটি ডলারে উন্নীত হবে।’

মোস্তাফা জব্বার এসময় উপস্থিত অর্থমন্ত্রীকে তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য ও সেবা রফতানিতে ১০ শতাংশ নগদ সহায়তা এবং ৯৪টি পণ্যের আমদানি শুল্ক ১ ভাগ করায় ধন্যবাদ জানান। এই সিদ্ধান্তের ফলে একটি প্রতিষ্ঠান কম্পিউটার উৎপাদনে এবং তিনটি প্রতিষ্ঠান ফোরজিসহ সব ধরনের মোবাইল উৎপাদনে যাবে বলেও জানান তিনি। মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘আমরা আমদানিকারক দেশ থেকে উৎপাদকের দেশ হতে যাচ্ছি।’

এসময় ইন্টারনেটের ওপর থেকে ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহারের পাশাপাশি ফেরজি সিম প্রতিস্থাপনে কর না নেওয়ার জন্য অর্থমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন তিনি।

বেসিস সফটএক্সপো ২০১৮-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর। বেসিস আয়োজিত চার দিনব্যাপী এই মেলা চলবে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

‘ডিজাইনিং দ্য ফিউচার’ প্রতিপাদ্য নিয়ে শুরু হওয়া এই মেলাকে পাঁচটি জোনে ভাগ করা হয়েছে। মেলায় ৩০টির বেশি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত।

ইন্টারনেটের ওপর আরোপিত ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহারের ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেন, ‘আমাদের রাষ্ট্রীয় সম্পদ বেড়েছে, কিন্তু সরকারের সম্পদ বাড়েনি। ফলে অনেক কিছুই করতে পারি না। তবে একটা ইতিবাচক সিদ্ধান্ত দেওয়ার আশা করছি। হতাশ হওয়ার কিছু নেই। আগামী জুন মাসের মধ্যে ইন্টারনেটের ওপর আরোপিত ভ্যাটের বিষয়ে একটা সিদ্ধান্ত উপস্থাপন করতে পারবো।’