নিজস্ব ব্যবসায় পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি লাগবে না সৌদি নারীদের

নিজস্ব ব্যবসায় পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি লাগবে না সৌদি নারীদের 

ব্যবসা শুরু করতে স্বামী বা কোনো পুরুষ আত্মীয়ের অনুমতির জন্য অপেক্ষা করতে হবে না সৌদি নারীদের। এখন থেকে নিজ সিদ্ধান্তেই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন তারা। সৌদি সরকার গত ১৫ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে।


সৌদি আরবের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, এখন থেকে সৌদি নারীদের ব্যবসা করার ক্ষেত্রে পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি থাকার বিষয়টি প্রমাণ করতে হবে না। এটা ছাড়াই তারা ব্যবসা শুরু করতে পারবেন, এমনকি সরকারের ই-সেবা ব্যবহার করে লাভবান হতে পারবেন। 

মন্ত্রী পরিষদের মুখপাত্র আব্দুল রহমান আল-হুসাইন টুইট করে এই ঘোষণা দেন। এজন্য আরবি হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেন তিনি।

হ্যাশট্যাগ ‘নো নিড’-এর ব্যবহারের মধ্য দিয়ে এই শিথিলতা অর্জন করেছে সৌদি নারীরা, এমনটি জানায় সৌদি আরবের সরকারি বার্তা সংস্থা।

সম্প্রতি সরকারি চাকরিতে নারীদের নিয়োগ দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে দেশটি। এছাড়া নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর এক দশকের নিষেধাজ্ঞাও তুলে নেওয়া হয়েছে।

সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের নেতৃত্বে গত অক্টোবর ‘মধ্যমপন্থী ও মুক্ত’ সৌদি আরব গড়ার প্রত্যয়ে শুরু হওয়া ‘ভিশন-২০৩০’ সংস্কার কর্মসূচির অংশ হিসেবে দেশটি কর্মজীবী নারীর হার মোট ২২ শতাংশ থেকে প্রায় এক-তৃতীয়াংশে উন্নীত করতে চায়। বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণ ও যুব সমাজের কাছে দেশের একটি আধুনিক ও ইতিবাচক ভাবমূর্তি গড়ার লক্ষ্যেই এই উদ্যোগ।

ব্যবসা শুরু করতে স্বামী বা কোনো পুরুষ আত্মীয়ের অনুমতির জন্য অপেক্ষা করতে হবে না সৌদি নারীদের। এখন থেকে নিজ সিদ্ধান্তেই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন তারা। সৌদি সরকার গত ১৫ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে।