ড্যামেজ থেকে চুলকে যেভাবে বাঁচাবেন

 

অনেক কারণেই আমাদের চুল ড্যামেজ হয়ে থাকে। আমাদের ভুল যত্নের কারণেই চুল ড্যামেজ হচ্ছে। কিন্তু, সমস্যা হচ্ছে আমরা প্রতিনিয়ত এই ভুলগুলো করেই যাচ্ছি। কিন্তু, আমরা জানি না যে, এই কারণেই আমাদের চুল ড্যামেজ হচ্ছে। আসুন তাহলে আজ আমরা জেনে নেই কি কি করলে আমাদের চুল ড্যামেজ হয়। আর কি করলে ড্যামেজ থেকে চুলকে রক্ষা করতে পারব।


১. আপনি কি শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার ব্যবহার করছেন না? তাহলে মারাত্মক ভুল করছেন। চুল নরম রাখার জন্য শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার ব্যবহার করা খুব জরুরি। তবে, যদি আপনার মনে হয়, কন্ডিশনার আপনার চুলকে প্রচণ্ড তেলতেলে করে দিচ্ছে, তাহলে শ্যাম্পু করার আগে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

২. আপনি কি সঠিক শ্যাম্পু ব্যবহার করছেন? চুলের ধরন জেনে তবেই শ্যাম্পু করা দরকার। ভুল শ্যাম্পু ব্যবহার করলে আপনার চুল আরও বেশি রুক্ষ শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

৩. চুল ধোয়ার সময়ে কখনোই গরম পানি ব্যবহার করবেন না। শ্যাম্পু ব্যবহার করে ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালো করে চুল ধুয়ে ফেলুন। ঠান্ডা পানি যে শুধুমাত্র ত্বকের জন্যই উপকারী তাই নয়, চুলের জন্যও একই রকম উপকারী।

৪. গোসল করে ভেজা চুল কখনোই চিরুণী দিয়ে আঁচড়াবেন না। কারণ, গোসল করার পর চুলের গোড়া নরম হয়ে থাকে। তাই তখন একটু টানেই চুল ছিঁড়ে যেতে পারে।

কিছু টিপস:
চুলের জন্য কখনোই বাজারের কিনতে পাওয়া পরিশোধিত মধু ব্যবহার করবেন না। এতে চুলের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। বেশি বেশি ব্যবহার করলেই যে আপনার চুল দ্রুত ড্যামেজ কাটিয়ে উঠবে এমন ধারণা ভুল।

অনেক কারণেই আমাদের চুল ড্যামেজ হয়ে থাকে। আমাদের ভুল যত্নের কারণেই চুল ড্যামেজ হচ্ছে। কিন্তু, সমস্যা হচ্ছে আমরা প্রতিনিয়ত এই ভুলগুলো করেই যাচ্ছি। কিন্তু, আমরা জানি না যে, এই কারণেই আমাদের চুল ড্যামেজ হচ্ছে। আসুন তাহলে আজ আমরা জেনে নেই কি কি করলে আমাদের চুল ড্যামেজ হয়। আর কি করলে ড্যামেজ থেকে চুলকে রক্ষা করতে পারব।