‘কাস্টিং কাউচ’-এর প্রতিবাদে তেলেগু অভিনেত্রীর নগ্ন প্রতিবাদ

‘কাস্টিং কাউচ’-এর প্রতিবাদে তেলেগু অভিনেত্রীর নগ্ন প্রতিবাদ 

তেলেগু ছবিতে অন্য প্রদেশের অভিনেত্রীদের অবাধ বিচারণ, সমঝোতা ও নিজ প্রদেশের শিল্পীদের অবহেলার দাবি তুলে ভিন্ন করমের এক প্রতিবাদ করেছেন প্রদেশটির এক অভিনেত্রী।


শ্রী রেড্ডি নামের এ অভিনেত্রী দীর্ঘদিন ধরে তেলেগু ছবিতে কাজ করছেন। কিন্তু পরিবেশ শোচনীয় দেখে তিনি তেলেগু চলচ্চিত্র শিল্পী অ্যাসোসিয়েশনের সামনে নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ করেন। ঘটনাটির সময় উল্লেখ না করে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে হিন্দুস্থান টাইমস জানায়, এর আগে বেশ কয়েকবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রতিবাদ করার পর রেড্ডি জনসম্মুখে এ কাজটি করলেন।

এ সময় রেড্ডি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘চলচ্চিত্র নির্মাতারা বেশি খরচে বলিউড ও চেন্নাইয়ের নায়িকাদের নিয়ে আসছেন। তারা নির্মাতাদের পছন্দ মতো সবকিছু করতে পারেন। এই সমঝোতার কারণে স্থানীয় নায়িকারা প্রতিভা থাকা সত্ত্বেও কাজের সুযোগ পাচ্ছেন না। এছাড়াও খরচ কমাতে জুনিয়র আর্টিস্টদের চরিত্র ছাঁটাই করা হয়।’

তিনি নগ্ন হয়ে প্রতিবাদের কারণ হিসেবে বলেন, ‘বাইরের নায়িকা আনার ক্ষেত্রে নির্মাতাদের যুক্তি থাকে, তারা অনেক বেশি বোল্ড, কিন্তু স্থানীয়রা ততটা নন। তাই তাদের সামনে নগ্ন হয়েছি। তাদের কতটা নগ্নতা দরকার, সেটা দেখাতেই!’

এর আগে তিনি বিষয়টি নিয়ে হায়দরাবাদের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলেন। এমনকি কিছুদিন আগে ফেসবুকে জানান, কাস্টিং কাউচ (অবৈধ সমঝোতা) না থামলে তিনি এমন কিছু করবেন, যাতে বিশ্ব মিডিয়া পর্যন্ত কেঁপে উঠবে।

শ্রী রেড্ডি তামিল ও তেলেগু ছবির অভিনেত্রী। উপস্থাপক ও ভিডিও জকি হিসেবেও তিনি বেশ সফল। তার বাবা হলেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ভারত রেড্ডি। বর্তমানে শ্রী রেড্ডি তেলেগু ছবিতে কাজ করছেন।

তেলেগু ছবিতে অন্য প্রদেশের অভিনেত্রীদের অবাধ বিচারণ, সমঝোতা ও নিজ প্রদেশের শিল্পীদের অবহেলার দাবি তুলে ভিন্ন করমের এক প্রতিবাদ করেছেন প্রদেশটির এক অভিনেত্রী।