নিজ জন্মদিনে অনন্তর অনন্য উদাহরণ

 

আজ (১৮ এপ্রিল) অন্যতম আলোচিত নায়ক-প্রযোজক অনন্ত জলিলের জন্মদিন। বর্তমানে ধর্মীয় কাজে বেশ সক্রিয় থাকা এ তারকা আজকের দিন কাটানোর জন্য বেছে নিয়েছেন পবিত্র শহর মক্কাকে।


সপরিবারে সেখানে অবস্থান করছেন তিনি। সেখান থেকেই ফেসবুকের মাধ্যমে তিনি জানান, বাস চাপায় হাত হারানো মারা যাওয়া যুবক রাজীবের পরিবারের দায়িত্ব নিয়েছেন তিনি। তার অসহায় দুই ভাইয়ের লেখাপড়ার ভার নিজ কাঁধে তুলে নিতে চান বলে জানান এই তারকা।

মঙ্গলবার রাতে অনন্ত জলিল জানিয়েছেন, কিছু দিন আগে বাস দুর্ঘটনায় রাজীব নামে একজন মেধাবী শিক্ষার্থী তার হাত হারিয়েছিলেন। এবং আজ তিনি পৃথিবী হতে বিদায় নিয়েছেন। যা আমাকে বেশ মর্মাহত করেছে। বাবা-মা হারা এই সন্তান তার ছোট দুই ভাইকে পিতা-মাতার স্নেহ দিয়ে আগলে রেখেছিলেন।

কিন্তু রাজীবের অকাল বিদায়ে তার দুই ছোট ভাইয়ের ভবিষ্যৎ হুমকির মুখে পড়েছে। তাই আমার জন্মদিনে আমি চাচ্ছি যে পরিবার হারা এই দুই সন্তানের পড়ালেখার দায়িত্ব নিতে।

উল্লেখ্য, গত ৩ এপ্রিল দুপুরে রাজধানীর কাওরানবাজারে সার্ক ফোয়ারার সামনে দুই বাসের চাপায় তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেনের (২২) হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। আহত অবস্থায় প্রথমে তাকে পান্থপথের শমরিতা হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে ৪ এপ্রিল বিকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজীবকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়। গত ৬ এপ্রিল রাজীবের চিকিৎসায় গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের প্রধান ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অর্থোপেডিক বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. শামসুজ্জামান শাহীন জানিয়েছিলেন, রাজীব এখনও আশঙ্কামুক্ত নয়। কারণ, তার হেড ইনজুরি আছে। মাথার সামনের অংশ আঘাতপ্রাপ্ত। মাথার হাড়ে ফাটল আছে। এরপর গত ১৭ এপ্রিল ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ’তে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রাজীব।

এদিক অন্তত জলিলের এমন জনহিতকর কাজ এটাই প্রথম নয়। এর আগে পরিচালক এফ আই মানিকের স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য তার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন অসম্ভবকে সম্ভব করা এ নায়ক। এছাড়া নিজে এতিমখানা পরিচালনাসহ জাতীয় দুর্যোগে দেশের মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন অনন্ত জলিল।

আজ (১৮ এপ্রিল) অন্যতম আলোচিত নায়ক-প্রযোজক অনন্ত জলিলের জন্মদিন। বর্তমানে ধর্মীয় কাজে বেশ সক্রিয় থাকা এ তারকা আজকের দিন কাটানোর জন্য বেছে নিয়েছেন পবিত্র শহর মক্কাকে।